Breaking News

কাশ্মীর ইস্যুতে ফের ‘মধ্যস্থতা’র বার্তা ট্রাম্পের, আবেদন খারিজ নয়াদিল্লির

সংবাদ সারাদিন, ওয়েবডেস্ক: কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে দ্বিতীয়বার ‘মধ্যস্থতা’র বার্তা দেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে, মার্কিন প্রেসিডেন্টের আবেদন খারিজ করল নয়াদিল্লি৷ এবার সরাসরি মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেওকে এই বিষয়ে স্পষ্ট বার্তা দিলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর৷ কাশ্মীর ইস্যুতে ভারত কোনও ভাবেই তৃতীয় পক্ষের অন্তর্ভুক্তি বরদাস্ত করবে না, তা সাফ জানালেন তিনি৷

শুক্রবার থাইল্যান্ডে আসিয়ান সামিটে মার্কিন বিদেশ সচিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর৷ সেখানেই কাশ্মীর ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের দ্বিতীয়বার দেওয়া ‘মধ্যস্থতা’র বার্তার বিরোধিতা করেন তিনি৷ বারবার মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই আচরণকে যে নয়াদিল্লি ভাল ভাবে দেখছে না, বিষয়টি স্পষ্ট ভাবে জানান তিনি৷ পরে টুইটারে এস জয়শংকর লেখেন, ‘কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের বক্তব্য স্পষ্ট ভাবে মাইক পম্পেরও কাছে জানান হয়েছে৷ যদি কাশ্মীর ইস্যুতে কথাবার্তা হতেই হয়, তবে তা ভারত-পাকিস্তান, দু’পক্ষের মধ্যে হবে৷’ ‘ বিদেশমন্ত্রীর এই ট্যুইটই প্রমাণ করে যে, ‘মধ্যস্থতা’র যে বার্তা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দিয়েছিলেন, তা উড়িয়ে দিয়েছে ভারত৷

উল্লেখ্য, পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকের পর কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে প্রথমবার ভারত ও পাকিস্তানকে সাহায্যের বার্তা দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ যা নিয়ে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়৷ সোজাসুজি ট্রাম্পের বক্তব্য খারিজ করে দিয়েছিল নয়াদিল্লি৷ কিন্তু তাতেও যে ট্রাম্পের মনোভাবের কোনও পরিবর্তন হয়নি, তার প্রমাণ পাওয়া যায় বৃহস্পতিবার৷ এদিন আবার এই বিষয়ে ‘মধ্যস্থতা’র বার্তা দেন তিনি৷ বলেন, ‘‘মধ্যস্থতায় রাজি হবেন কি না, এটা একেবারেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্যাপার। আমি মনে করি, তাঁরা দুজনেই দুর্দান্ত মানুষ…খান আর মোদির কথা বলছি। তাঁরা ভালোভাবেই কাজটা সামলাচ্ছেন। কিন্তু যদি তাঁরা কারও হস্তক্ষেপ চান…সে ব্যাপারেই পাকিস্তানকে বলেছি। ভারতেও এ ব্যাপারে পরিষ্কারভাবে একই কথা বলেছি।’’ কিন্তু প্রেসিডেন্টের বার্তা এবারও ফেরাল নয়াদিল্লি৷(তথ্য সৌজন্যে: প্রতিদিন)

error: Content is protected !!