Breaking News

১০০ দিনের কাজে শ্রমদিবস বৃদ্ধির নামে মানসিক অত্যাচার, প্রতিবাদে বালুরঘাটে প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও নির্মাণ সহায়কদের

সংবাদ সারাদিন, বালুরঘাট: ১০০ দিনের কাজে শ্রম দিবস বৃদ্ধির নামে নির্মাণ সহায়কদের উপর মানসিক অত্যাচার চালানো হচ্ছে। এমনকি কাজ ঠিকমত করতে না পারলে সরকারি মিটিংয়ে অনৈতিকভাবে নির্মাণ সহায়কদের চাকরি খাওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। অবশেষে মানসিক অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে এবার রাস্তায় নেমে আন্দোলন শুরু করলেন জেলার বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্মাণ সহায়করা।

বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে মঙ্গলবার নির্মাণ সহায়ক ঐক্য মঞ্চের দক্ষিণ দিনাজপুর শাখার পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান শতাধিক কর্মীরা। তাদের দাবি মানা না হলে আগামী দিনে আরও বড় আন্দোলনে নামবেন বলে হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয় তাদের তরফে।

মূলত জেলার বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েতে কাজ করেন নির্মাণ সহায়করা। এমজিএনআরইজিএস প্রকল্পে ১০০ দিনের কাজ করে থাকেন তারা। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় ৬৪টি গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতি মিলে প্রায় শতাধিক নির্মাণ সহায়ক কাজ করেন। অভিযোগ, বছর খানেক থেকে এইসব নির্মাণ সহায়কদের উপর কাজের নামে নানাভাবে মানসিক অত্যাচার করা হচ্ছে। বর্তমানে ১০০ দিনের চাহিদাভিত্তিক কাজকে লক্ষ্যভিত্তিক কাজে পরিণত করা হয়েছে। কেন্দ্র বা রাজ্য সরকারের নির্দেশিকায় পরিষ্কার উল্লেখ রয়েছে গ্রাম পঞ্চায়েত বাদে ও অন্যান্য বিভিন্ন দফতরকেই এই এমজিএনআরইজিএস প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।

তবে অন্যান্য কোন দফতরকে নয় শুধুমাত্র গ্রাম পঞ্চায়েত নির্মাণ সহায়ক এর উপরে কাজের চাপ দেওয়া হচ্ছে। কাজের গড় শ্রমদিবস বৃদ্ধির নামে নির্মাণ সহায়কদের উপর মানসিক অত্যাচার চালানো হচ্ছে। এমনকি সরকারি মিটিং থেকে নির্মাণ সহায়কদের চাকরি খাওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এইসবের প্রতিবাদে এদিন বিকেলে বালুরঘাট জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় শতাধিক নির্মাণ সহায়ক। এদিকে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আগে থেকেই জেলা প্রশাসনিক ভবন চত্বরে মোতায়েন করা হয় বিশাল পুলিশ। এদিন মিছিল করে জেলা প্রশাসন ভবনে আসেন আন্দোলনকারীরা। ঘেরাও বিক্ষোভের পরে তারা জেলা শাসকের কাছে লিখিত আকারে স্মারকলিপি জমা দেন।

এবিষয়ে আন্দোলনকারী নির্মাণ সহায়ক সুদীপ্ত দাস জানান, তাদের উপর যেভাবে কাজের নামে মানসিক অত্যাচার করা হচ্ছে তা সহ্যের বাইরে। অন্য দফতর থাকলেও এই নির্মাণ সহায়কদের উপরই এমজিএনআরইজিএস প্রকল্পের ১০০ দিনের কাজ করার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। কাজ করতে না পারলে চাকরি খাওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এরই প্রতিবাদে আজ তারা পথে নেমেছেন। জেলা প্রশাসন ভবনের সামনে বিক্ষোভ ও পরে জেলা শাসককে স্মারকলিপি প্রদান করেন। অন্যদিকে পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা শাসক নিখিল নির্মল।

error: Content is protected !!