Breaking News

পোশাক ও বইয়ের জন্য অতিরিক্ত টাকা, হরিরামপুর পলিটেকনিক কলেজে পড়ুয়াদের বিক্ষোভ

সংবাদ সারাদিন, হরিরামপুর: পোশাক ও বই বাবদ অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল হরিরামপুর পলিটেকনিক কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ ছাত্রছাত্রীদের। পরে সব পক্ষকে নিয়ে ব্লক প্রশাসনের আলোচনায় স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি।

জানা গিয়েছে, কলেজের ইউনিফর্ম এবং বইয়ের জন্য অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার অভিযোগ ওই কলেজের প্রিন্সিপাল মনি কুন্তলা দাসের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি অধ্যাপকদের সঙ্গেও দুর্ব্যবহার সহ অন্যান্য অভিযোগও উঠে। প্রতিবাদে ছাত্রছাত্রীরা এদিন দুপুরে হরিরামপুর পাঁচগ্রাম এলাকায় ইটাহার – বালুরঘাট রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে।

ঘণ্টাখানেক বাদে হরিরামপুর ব্লকের বিডিও ও পুলিশ গিয়ে কথা বলেন আন্দোলনকারী ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে। পরে ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে আলোচনায় বসা হয় অধ্যক্ষ, অধ্যাপক ও ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে। আলোচনার একগুচ্ছ অভিযোগ উঠে আসে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। কলেজের অন্যান্য অধ্যাপক ও কর্মীরা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধেই কথা বলেন।

আন্দোলনকারী মনি সরকার নামে এক ছাত্র বলেন, কলেজের প্রিন্সিপাল মনি কুন্তলা দাস কলেজের ড্রেস এবং বই বাবদ বেশি টাকা নিয়েছেন। অন্যায়ভাবে তিনি জোর করে ভরতির স্লিপ আটকে রেখে ছাত্রছাত্রীদের বাধ্য করেন বেশি টাকা দেওয়াতে। তার ব্যবহারও খারাপ। প্রিন্সিপালের বদলির দাবিতেই আন্দোলন।

অধ্যক্ষ মনি কুন্তলা দাস জানান, কাটমানি নেননি। গোয়ালপোখর পলিটেকনিক কলেজে পোশাক তৈরি করা হয়। তিনি যে টাকা নিয়েছেন, সেই টাকাটি কলেজের হিসাব রক্ষকের কাছে জমা আছে। জোর করে ভরতির স্লিপ আটকে রাখেননি বলে দাবি করেন অধ্যক্ষের। ছাত্রছাত্রীরা চাইলেই স্লিপ ফেরত দেওয়া হবে।

হরিরামপুর কলেজের বিডিও শ্রীমান বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, তিনি নিজে খতিয়ে দেখছেন। পুরো রিপোর্ট মহকুমা শাসককে জানাবেন। পরবর্তীতে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।