Breaking News

মালদায় অসহায় দুই বোনের পাশে দাঁড়াল জেলা প্রশাসন, খুশি প্রতিবেশীরা

সংবাদ সারাদিন, মালদা : পরিতোষ সরকার : যার কেউ নেই তার ভগবান আছে। এই বাণী অতীত, সংবাদ মাধ্যমের খবরের জেরে অসহায় দুই বোন দেবী ও পার্বতীর পাশে দাঁড়ালো জেলা প্রশাসন। পাকা বাড়ি থেকে খাদ্য সামগ্রী ভাতা সবরকম সরকারি সাহায্যে এগিয়ে আসলে প্রশাসনের কর্তারা। সাহায্য পেয়ে খুশি দেবী ও পার্বতী সহ তাদের গ্রামবাসীরাও। আর ভিক্ষা নয়,পড়ালেখা করে বড় হতে চাই দেবী-পার্বতী।

মালদার মানিকচক ব্লকের চৌকি মিরদাদপুর অঞ্চলের ভগবানপুর গ্রামের বাসিন্দা দেবী মাঝি(১৩) ও ছোট বোন পার্বতী মাঝি(১১)।পড়াশোনা তো দূর,বাবা মা মারা যাওয়ার পর দুবেলা দুমুঠো অন্ন জোটাতে করতে হচ্ছিল ভিক্ষে। দুই বোনের বেঁচে থাকার লড়াইয়ের চিত্র সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশের পর ঘুম ভাঙে প্রশাসনের। এদিনে তাদের বাড়িতে সাহায্যের ঝুলি নিয়ে হাজির হন মালদা জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌর চন্দ্র মণ্ডল সঙ্গে ছিলেন,মানিকচক ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক সুরজিৎ পন্ডিত, ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক হেম নারায়ণ ঝা এছাড়াও প্রশাসনের বিভিন্ন কর্তারা।

এদিন সভাধিপতি গৌর চন্দ্র মণ্ডল জানান, সরকারি সমস্ত সুবিধা তারা পাবে। তাদের ব্যাঙ্কের খাতা খুলে দেওয়া হচ্ছে। সরকারিভাবে প্রতিমাসে তাদের একাউন্টে টাকা ঢুকবে। বাড়িতে থেকে তারা পড়াশোনা করবে। এদের পাকা বাড়ি শৌচাগার তৈরি করে দেওয়া হবে। পরনের পোশাক থেকে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় অঙ্গনওয়ারী কর্মীদের এদের দেখাশোনার জন্য যুক্ত থাকবে। সরকার সবরকমভাবে এদের পাশে থাকবে।

ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক হেম নারায়ণ ঝা জানান, সেই শিশু গুলি ঠিকমতো খাবারের অভাবে শারীরিকভাবে দুর্বল। তাদের আজ চিকিৎসা করানো হয়েছে। কিছু ওষুধপত্র দেওয়া হয়েছে নিয়মিত সেবনের জন্য। আমরা মাঝে মাঝে এসে এদের চিকিৎসা করবো। আশা কর্মীদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

প্রশাসনের এমন উদ্যোগকে সাদুবাদ জানিয়েছে গ্রামবাসীরা। খুশি দুইবোন সহ গ্রামবাসী।

error: Content is protected !!