Breaking News

দশমীর বিদায় বেলায় গ্রামের দুর্গাদের হাতে শাড়ি তুলে দিল জঙ্গলমহল মেরিনার্স

সংবাদ সারাদিন, ঝাড়গ্রাম : দশমীর বিদায় বেলায় শ্বশুর বাড়ি ফেরার পালা দুর্গার। তাই শ্বশুর বাড়ি যাওয়ার আগে গ্রামের দুর্গাদের হাতে শাড়ি তুলে দিল জঙ্গলমহল মেরিনার্স। জঙ্গলমহল মেরিনার্স নামে এই মোহনবাগান ফ্যানস ক্লাবটি গোপীবল্লভপুর ঝাড়গ্রাম মেরির্নাস নামেও পরিচিত।

দু-এক জন ছাড়া ক্লাবের সদস্যদের কোনও স্থায়ী চাকরি নেই। শুধুমাত্র নিজের বাঁচানো অর্থে তারা আনন্দ ভাগ করেন সবার সঙ্গে। ২০১৫ সালে এই ক্লাবের পথ চলা শুরু হয়। তারপর থেকেই গোপীবল্লভপুর এলাকার প্রত্যন্ত স্কুলের পড়ুয়া, এলাকার গরিব মানুষদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এসেছেন তাঁরা। বিগত বছরে স্কুলের ছেলেমেয়েদের খাতা, ব্যাগ,পেন, পেনসিল ও প্রত্যন্ত এলাকার গরিব মানুষা যারা ঘরের অভাবে বাইরে রাত কাটান তাদেরকে কম্বল বিতরণ করেছে এই ফ্যানস ক্লাব।

এবছরও পুজোর বিদায়ের সুরেও যে আগামীর আনন্দ থাকে তা ভাগ করে নিতে উদ্যোগী হয়েছিলেন তাঁরা। বিজয়া দশমীর দিনেই দেবীর বিদায় বেলায় গ্রাম-বাংলার মায়েদের আঁচলের ছায়ায় আসতে পেরে খুশি ক্লাবের কর্মকর্তারা। গোপীবল্লভপুর ২নং ব্লকের অহরডাঙা ও সনাকড়া দুটি গ্রাম মিলিয়ে মোট ৬০-৭০ জনকে এদিন শাড়ি উপহার দেন জঙ্গলমহল মেরিনার্সের সদস্যরা।

গ্রুপের সদস্যরা বলেন,”বিজয়া দশমীর দিন বিদায়ের সুরে আমরা আগামীর আনন্দ ভাগ করে নিতে দুই গ্রামের প্রতিটি মহিলাদেরকে একটি করে শাড়ি বিতরণ করেছি।” এহেন উপহার পেয়ে খুশি তাঁরাও। অহরডাঙা গ্রামের রইবারি সিং, সন্ধ্যা সিং, দেবী সিং ও সনাকড়া গ্রামের বুলু মান্ডি, মালতি সিং’রা বলেন,”নতুন শাড়ি পেয়ে আমরা সকলেই খুব খুশি!”

error: Content is protected !!