Breaking News

বিয়ে বাড়িতে নাচ করার সময় অসুস্থ হয়ে মৃত্যু ব্যক্তির, শোকের ছায়া পরিবারে

সংবাদ সারাদিন, হাওড়া: এক নিমেষেই বিষাদের কালো মেঘে ছেয়ে গেল আনন্দ উচ্ছ্বল পরিবেশ। বিয়ে বাড়িতে সবাই যখন নাচে-গানে মেতে রয়েছে, ঠিক সেই সময় ঘটে গেল মর্মান্তিক এক ঘটনা। বিয়ে বাড়তে নাচ করতে করতেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল এক ব্যক্তি। গত মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটে জগৎবল্লভপুর থানার অন্তর্গত পাতিয়ালে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, ভাগ্নির বিয়ে উপলক্ষ্যে মামা শেখ রাজু (৪৯) বিয়ে বাড়িতে গিয়েছিলেন। পেশায় গাড়ি চালক শেখ রাজু রাতের খাওয়া দাওয়ার পর গানের তালে তালে নাচ্ছিলেন। সেই সময় বক্সে বাজছিল কিশোর কুমারের গাওয়া ডন ছবির বিখ্যাত গান “ম্যায় হুঁ ডন….ম্যায় হুঁ ডন।” আত্মীয় পরিজন ব্যস্ত মোবাইল ফোনে তার নাচের ছবি তুলতে।

কিন্তু হঠাৎ-ই অসুস্থ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে শেখ রাজু। আর ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। আত্মীয়-পরিজন তাকে সঙ্গে সঙ্গে নিয়ে যায় জগৎবল্লভপুর গ্রামীন হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। অনুষ্ঠানের আবহে নিজেদের চোখ ও কানকেও যেন বিশ্বাস করতে পারছিলেন না আত্মীয়- পরিজনরা।

সঙ্গে সঙ্গে এক প্রাইভেট চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। সেখানে ওই প্রাইভেট চিকিৎসকও শেখ রাজুকে মৃত বলেন। এরপরে তারা তাকে বাড়িতে নিয়ে আসেন ও বুধবার তাকে স্থানীয় কবরস্থানে কবর দেওয়া হয়। এই ঘটনায় শোকস্তব্ধ গোটা এলাকা।

তার প্রতিবেশী শেখ সইদুল ইসলাম বলেন, নাচতে নাচতে শেখ রাজু হৃদরোগে আক্রান্ত হলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃতের ছেলে শেখ রাজা বলেন, বাবা গাড়ি চালালেও নাচ-গানের শখ ছিল। বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়র বাড়িতে যেকোন অনুষ্ঠানে তিনি নাচতেন। কী যে হয়ে গেল! হাসিখুশি মানুষটার এমন আকষ্মিক মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা পরিবার।