Breaking News

ছত্রপতি শিবাজিকে ‘অপমান’ করায় কেবিসি বয়কটের ডাক, ক্ষমা চাইলেন বিগ বি

সংবাদ সারাদিন, ওয়েবডেস্ক: জনপ্রিয়তার দিক থেকে ‘কউন বনেগা ক্রোড়পতি’র কোনও তুলনা হয় না। রিয়ালিটি শো মানেই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দু। কিন্তু কেবিসি সেদিক থেকে ব্যতিক্রম। সম্ভবত অমিতাভ বচ্চনের সুকৌশলী ও বিনম্র সঞ্চালনার জন্যই বিতর্ক থেকে এতদিন শতহস্ত দূরে ছিল ‘কউন বনেগা ক্রোড়পতি’। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। শিবাজিকে ছত্রপতি না বলায় বিতর্কের মুখে পড়তে হল শো এবং বিগ বি’কে। এমনকী শোয়ের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করারও দাবি উঠল। পরিস্থিতি সামলাতে বিতর্কের মুখে ক্ষমা চাইলেন খোদ অমিতাভ বচ্চন।

‘কউন বনেগা ক্রোড়পতি ১১’র বুধবারের এপিসোডে প্রতিযোগীকে একটি প্রশ্ন করেন বিগ বি। সেখান থেকেই শুরু হয় বিতর্ক। প্রশ্ন ছিল মুঘল সম্রাট ঔরঙ্গজেবের সময়কালে কে রাজত্ব করেছেন? উত্তরে ছিল চারটি অপশন- ১)মহারাণা প্রতাপ, ২)রানা সঙ্গ, ৩)মহারাজ রঞ্জিৎ সিং ও ৪)শিবাজি। চতুর্থ অপশনটি নিয়েই বিতর্কের উৎপত্তি। শিবাজির নামের আগে কেন ছত্রপতি লেখা হয়নি, তা নিয়ে সরব হন নেটিজেনরা। প্রশ্ন ওঠে বাকি নামগুলির সঙ্গে তো সম্মানসূচক খেতাব ব্যবহার করা হয়েছে। তাহলে শিবাজির ক্ষেত্রে ছত্রপতি কেন বসানো হয়নি? এমনকী ঔরঙ্গজেবকেও সম্রাট হিসেবে সম্বোধন করা হয়ছে। কিন্তু শিবাজি ব্রাত্য থেকে গিয়েছেন।

নেটিজেনদের পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের বিজেপি বিধায়ক নীতেশ রানেও বিষয়টি নিয়ে বিরোধিতায় সরব হন। সরাসরি তিনি জানান, শিবাজিকে ছত্রপতি না বলে মারাঠা বীরকে ‘অপমান’ করেছেন। এর জন্য চ্যানেল কর্তৃপক্ষকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি তোলেন তিনি। হুমকি দেন, যদি ক্ষমা চাইতে চ্যানেল দেরি করে তবে জনপ্রিয় এই শো বন্ধ করে দেওয়া হবে। বিধায়কের এই মতের সমর্থনে এগিয়ে আসেন অনেকে। এমনকী, ‘বয়কট কেবিসি সোনি টিভি’ নামে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি হ্যাশট্যাগও চালু হয়ে যায়। বিতর্কের মুখে পড়ে ক্ষমা চেয়ে নেয় সোনি কর্তৃপক্ষ। টুইটারে ক্ষমা অমিতাভ বচ্চনও চেয়ে নেন। (তথ্য সৌজন্যে: প্রতিদিন)