Breaking News

গঙ্গারামপুরে এসে কাশ্মীর ফেরত শ্রমিকদের হাতে টাকার চেক তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

সংবাদ সারাদিন, গঙ্গারামপুর : প্রশাসনিক বৈঠকে এসে রিভিউ মিটিংয়ের আগেই কাশ্মীর ফেরত দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ১১২ জন শ্রমিকের হাতে ৫০ হাজার টাকা করে চেক তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রাণ রক্ষায় কাশ্মীর থেকে কাজ ছেরে আসা এই শ্রমিকদের এককালীন সাহায্য করা হল।

জানা গিয়েছে, দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার উন্নয়ন প্রকল্পর বাস্তবতা নিয়ে মঙ্গলবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুরে ছিল রিভিউ মিটিং। স্থানীয় স্টেডিয়ামে অস্থায়ী ট্রেন্টে জেলা প্রশাসন থেকে শুরু করে পুলিশ ও অনান্য আধিকারিকদের মিয়ে এই বৈঠক চলে। তবে এই বৈঠক শুরুর আগে মঞ্চেই কাশ্মীর ফেরত ১১২ জনের হাতে ৫০ হাজার টাকার চেক তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য সরকার তথা মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী চেক পেয়ে খুশি সুব্রত বসাক, হায়দার আলি, হাসান আলি, আব্দুল কাদের মিঁয়ারা।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আতঙ্কের কারণে কাশ্মীর থেকে কাজ ছেরে ফিরে এসেছে এই শ্রমিকরা। তাদের সামাজিক সুরক্ষা যোজনার অধীনে আনা হয়েছে। ৫০ হাজার টাকা করে এদের দেওয়া হল যাতে এরা এই টাকা দিয়ে কিছু করে খেতে পারেন।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে কাশ্মীরে জঙ্গীহানায় মুর্শিবাদ জেলার পাঁচ শ্রমিকের মৃত্যু হতেই তৎপরতা শুরু হয় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে কাশ্মীরে কর্মরত রাজ্যের ১৩৩ জনকে ফিরিয়ে আনা হয়। যার মধ্যে ১১২ জন শ্রমিক

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার। কলকাতা থেকে পুলিশি নিরাপত্তায় তিনটি বাসে করে ওই শ্রমিকদের নিয়ে আসা দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায়। ৫ নভেম্বর ভোর ৫ টা নাগাদ জেলার বুনিয়াদপুরে পৌঁছায় ওই শ্রমিকরা। তাদের অভ্যর্থনা জানান, উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের ভাইস চেয়ারম্যান অর্পিতা ঘোষ, গঙ্গারামপুর মহাকুমা শাসক দেবাঞ্জন রায়, গঙ্গারামপুর মহাকুমা পুলিশ আধিকারিক দ্বীপ কুমার দাস সহ অন্যান্য আধিকারিকরা।

পূর্ণ সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে তাদের হাতে বস্ত্র, খাবার তুলে দিয়ে নিজ নিজ বাড়ি পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হয় প্রশাসনিক ভাবে। ১১২ জন এই শ্রমিকদের মধ্যে ১০৫ কুশমণ্ডি, ৫ জন বংশীহারী এবং দুইজন শ্রমিক গঙ্গয়ারামপুর ব্লকের বাসিন্দা। তাদেরকে সামাজিক সুরক্ষা যোজনার অন্তর্ভুক্ত করা হয় এদিন।