Breaking News

হিলির মেধাবী ছাত্রী সুস্মিতার স্বপ্ন পূরণে পাশে দাঁড়াল ‘নবদিগন্ত’

সংবাদ সারাদিন, হিলি: হিলি এসবিএস গভর্মেন্ট কলেজে পাঠরত এক মেধাবী ছাত্রী সুস্মিতা পাল। ছোটবেলা থেকে নানা আর্থিক অনটনের মধ্যে থাকলেও নিজের অদম্য ইচ্ছাশক্তির জোড়ে সে দারিদ্র্যের কাছে মাথা নত করেনি কখনও। বাড়ির কাজকর্মের পাশাপাশি লেখাপড়াটাও সে সমানভাবে চালিয়ে গিয়েছে। বর্তমানে সে হিলি এসবিএস কলেজ থেকে তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষায় ফার্স্টক্লাস পেয়ে সফলভাবে উত্তীর্ণ হয়েছে। এরপরে তার ইচ্ছা মাস্টার ডিগ্রী নিয়ে পড়াশুনা করার। কিন্তু তাতে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে পারিবারিক আর্থিক অনটন। মাস্টার ডিগ্রীতে পড়ার জন্য যে অর্থের প্রয়োজন, তা কোথা থেকে পাবে, তা ভাবতে গিয়েই নিজের স্বপ্ন থেকে পিছু হটতে বাধ্য হয় পিতৃহারা সুস্মিতা। উচ্চ শিক্ষার জন্য কোনওভাবেই টাকার জোগাড় করে উঠতে পারছিল না সে।

অবশেষে মিলল সমাধান সূত্র। তার মাস্টার ডিগ্রী পড়ার স্বপ্নের পথে যে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছিল, তা সরিয়ে দিতে এই মেধাবী ছাত্রীর পাশে দাঁড়াল ‘নবদিগন্ত’। টাকার জন্য মাঝ পথে থমকে দাঁড়িয়েছে এক মেধাবী ছাত্রীর পড়াশোনা, এই খবর নবদিগন্তের সদস্যদের কাছে পৌঁছতেই তারা এই ব্যাপারে উদ্যোগী হয় এবং মাস্টার ডিগ্রী করার জন্য কলেজে ভরতির টাকা তুলে দেওয়া হয় সুস্মিতার হাতে ।

এদিকে একজন মেধাবী ছাত্রীর পড়াশোনার জন্যে এই কাজটি করতে পেরে খুশি নবদিগন্তের সকল সদস্যরাও। সেই সঙ্গে আগামীতেও সুস্মিতার উচ্চ শিক্ষার পথে যাতে আর্থিক অনটন অন্তরায় হয়ে না দাঁড়ায়, তাই সকলের কাছে সহযোগিতার আর্জি জানিয়েছে তারা।

নবদিগন্তের এক সদস্য বলেন, “আমরা চাই এইভাবে সুস্মিতা পালের মত মেয়েরা আর্থিক অনটনকে জয় করে নিজেদের লক্ষ্যে এগিয়ে যাক। সফল হোক তাদের এই লক্ষ্য। আমরাও গর্বিত তার চলার পথে এইভাবে পাশে থাকতে পেরে।” পাশাপাশি তাদের এই কর্মকাণ্ডে পাশে থাকার জন্য এসবিএস গভর্মেন্ট কলেজকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান নবদিগন্তের সদস্যরা।