Breaking News

লন্ডন থেকে ফিরে কোয়ারেন্টাইনে থাকার বালাই নেই! প্রশ্নের মুখে অভিনেতা অভিষেক

সংবাদ সারাদিন, ওয়েবডেস্ক: বুধবারই লন্ডন থেকে দেশে ফিরেছেন প্রযোজক-অভিনেতা জিৎ মদনানির ‘বাজি’র গোটা টিম। বিলেত থেকে কলকাতায় পা রেখেই দুই তারকাই যেখানে বাড়িতে ব্যক্তিগতভাবে কোয়ারেন্টাইনে কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, সেখানে তাদের টিমে থাকা আরেক খ্যাতনামা অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায় বাড়িতে সবার সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন। আর সেখানেই উঠছে প্রশ্ন। এরকম বড়োমাপের একজন অভিনেতা বিশ্বজুড়ে করোনা ত্রাসের মাঝেই কীভাবে এমন উদাসীনতা দেখাতে পারেন? ঘনিষ্ঠ মহলেও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

ভারত যেখানে করোনার তৃতীয় স্টেজে পৌঁছনোর পথে ইতিমধ্যেই গোটা দেশজুড়ে জারি হয়েছে বিশেষ সতর্কতা। করোনা মোকাবিলায় আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীও বিশেষ সাবধানতা অবলম্বন করেছেন, বিদেশ থেকে ফিরলেই যেখানে কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, সে পরিস্থিতিতে কীভাবে সেসব সাবধানবাণী লঙ্ঘন করে বাড়িতে সবার সঙ্গে কাটাচ্ছেন অভিষেক চট্টোপাধ্যায়, প্রশ্নের মুখে অভিনেতার দায়িত্বজ্ঞান! উপরন্তু কোনও এক অনুষ্ঠানেও যাওয়ার কথা রয়েছে তাঁর।

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগে অঞ্জন দত্তও অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠান করে দেশে ফেরার পরই বিমান বন্দর থেকে রাতে সোজা চলে গিয়েছিলেন বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনে। সূত্রের খবর, সেখানে তিনি গানও গেয়েছেন। এই বিষয়ে তাকে জিজ্ঞেস করা হলে, সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছিলেন যে বিমানবন্দরে থার্মাল চেকআপ রিপোর্টে তার সবকিছুই নরম্যাল ছিল, তাই তিনি সেখানে গিয়েছিলেন। সেই একই সুর শোনা গিয়েছে অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের গলাতেও। অভিষেকও জানিয়েছেন, কলকাতা বিমানবন্দরে স্ক্রিনিংয়ের পর তারাই অভিষেককে বাড়ি চলে যাওয়ার কথা বলেন। উপরন্তু, তিনি এও দাবি করেন যে তার শরীরে কোনও ভাইরাস নেই। তাই তিনি নিজেকে গৃহবন্দী রাখেননি।

কিন্তু রাজ্যের রিপোর্ট বলছে, বিদেশ থেকে ফেরার দিন কয়েক পরই করোনা আক্রান্ত দুই তরুণের মধ্যে নানা উপসর্গ দেখা দিয়েছে। আর শুধু রাজ্যই কেন, এখনও পর্যন্ত গোটা বিশ্বের রিপোর্টের সিংহভাগের ক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে বিদেশ দু’চার দিন পর থেকেই উপসর্গ আরও প্রকট হয়েছে, সেক্ষেত্রে অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের বিদেশ থেকে ফেরার পর এখনও কিন্তু সবে দিন ২ গিয়েছে! সেখানে কোয়ারেন্টাইনে না থেকে তিনি বাড়ির সব সদস্যদের সঙ্গে মেলামেশা করছেন। কেন বারবার তারকাদের এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ? প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।(তথ্য সৌজন্যে: প্রতিদিন)