Breaking News

জরুরী পরিষেবায় যুক্ত ব্যক্তিত্বদের জন্য ১০ লক্ষ টাকা প্রদান বালুরঘাটের বিধায়কের

সংবাদ সারাদিন, বালুরঘাট : করোনার থাবায় রীতিমত মহামারি পরিস্থিতি বিশ্বজুড়ে। আর সেই থাবা থেকে মুক্তি পায়নি ভারতও। মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১, আক্রান্ত বহু। ক্রমাগত বেড়েই চলেছে সেই সংখ্যা। ব্যতিক্রম নয় দেশের বিভিন্ন রাজ্যগুলিও। করোনার ছোবল থেকে রেহাই পায়নি পশ্চিমবঙ্গও। তাই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তেই একাধিক সচেতনতামূলক পদক্ষেপ গৃহীত হচ্ছে রাজ্য সরকারের তরফে। এমনকি রাজ্যজুড়ে জারি করা হয় লকডাউনও।

এদিকে শুধু রাজ্য সরকারই নয়, করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে আসে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন থেকে শুরু করে রাজনৈতিক দলগুলিও। কখনও সচেতনতামূলক বার্তা দিয়ে আবার কখনও সচেতনতামূলক পদক্ষেপ নিয়ে করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে আসে অনেকেই।

এবার করোনা মোকাবিলায় জরুরী পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিত্বদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এলেন বালুরঘাটের বিধায়ক বিশ্বনাথ চৌধুরী। করোনা মোকাবিলায় সদা তৎপর তথা জরুরী পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিত্বদের মাস্ক ও স্যানিটাইজার সহ অন্যান্য সামগ্রী প্রদানের জন্য জেলা শাসকের হাতে ১০ লক্ষ টাকা তুলে দেন তিনি।

বুধবার সকালে জেলা শাসক দফতরে গিয়ে তিনি নিজের বিধায়ক তহবিল থেকে ১০ লক্ষ টাকা তুলে দেন জেলা শাসকের হাতে। পাশাপাশি বালুরঘাট বিধানসভায় যেসব দুস্থ ব্যক্তি রয়েছে, যারা দিন আনে দিন খায় তাদের জন্য আরও পাঁচ লক্ষ টাকা তুলে দেওয়ার কথা জেলাশাসককে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, সারা দেশে যেভাবে করোনার প্রকোপ বাড়ছে তাতে মঙ্গলবারই প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশকে ২১ দিনের জন্য লকডাউন করে দেন। এদিকে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনও করোনা মোকাবিলায় একাধিক উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

ইতিমধ্যে দক্ষিণ দিনাজপুরে আইসোলেশন ওয়ার্ড ও কোয়ারেন্টাইন খোলা হয়েছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত প্রায় পাঁচ হাজার জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়।

এদিকে অন্যান্য জেলার মত দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাতেও করোনা মোকাবিলায় যেসব স্বাস্থ্য কর্মীরা যুক্ত রয়েছেন এবং জরুরী পরিষেবার সঙ্গে যারা যুক্ত রয়েছেন তারা মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও গ্লাবস পাচ্ছেন না।

এমতাবস্থায় যারা জরুরী পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তাদের পাশে দাঁড়াতে উদ্যোগী হলেন বালুরঘাটের বিধায়ক তথা আজকের রাজ্য সম্পাদক বিশ্বনাথ চৌধুরী। বুধবার নিজের আর্থিক তহবিল থেকে জরুরী পরিষেবা সঙ্গে যুক্ত যারা রয়েছেন তাদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাক্স, গ্লাভস ও অন্যান্য সামগ্রী প্রদানের জন্য ১০ লক্ষ টাকা তুলে দেন জেলা শাসকের হাতে।

এবিষয়ে বালুঘাটের বিধায়ক বিশ্বনাথ চৌধুরী জানান, করোনা মোকাবিলায় যেসব স্বাস্থ্য কর্মী, সংবাদিক, দমকলকর্মী ও পুলিশ প্রশাসন যুক্ত রয়েছেন তাদের হ্যান্ড গ্লাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদানের জন্য নিজের তহবিল থেকে ১০ লক্ষ টাকা জেলা শাসকের হাতে তুলে দিয়েছেন। পাশাপাশি জেলাশাসককে তিনি আরও বলেন, দুস্থ মানুষদের খাবারের ব্যবস্থার জন্য প্রয়োজনে নিজের তহবিল থেকে আরও পাঁচ লক্ষ টাকা দেবেন।