Breaking News

ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে দ. দিনাজপুর জেলা জুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ বহু

সংবাদ সারাদিন, বালুরঘাট: একেই করোনা আতঙ্ক, তার মধ্যেই আবার কালবৈশাখী ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেল একাধিক বাড়ি-ঘর থেকে শুরু করে দোকানপাট। দমকা হাওয়ার চোটে দুমড়েমুচড়ে পড়ে গাছ। এদিকে ঝড়ের জন্য বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়ে শহর বালুরঘাট সহ শহরতলী।

এমনকি ঝড়-বৃষ্টির জেরে ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কায় দক্ষিণ দিনাজপুরের বোরো ধান চাষিরাও। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন।

করোনা আবহের মধ্যে বৃহস্পতিবার কালবৈশাখী ঝড়ে তছনছ হয়ে গেল গোটা জেলা। এদিন বিকেল থেকেই মেঘাচ্ছন্ন ছিল আকাশ। দফায় দফায় চলছিল কালবৈশাখী ঝড়।

আর তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শুরু হয় শিলাবৃষ্টিও। দমকা হাওয়ায় ভেঙে যায় জেলার একাধিক গাছ। ঝড়ে বালুরঘাট প্রশাসনিক ভবনের দু’টি বড় গাছ ভেঙে পড়ে। জাতীয় সড়কের উপরও ভেঙে পড়ে একাধিক গাছ ।

এছাড়াও বালুরঘাট সহ জেলা জুড়ে বহু জায়গায় গাছপালা ভেঙে পড়েছে। লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় একাধিক বাড়ি। মূলত টিন ও খড়ের ছাউনি দেওয়া ঘরের ছাউনি উড়ে যায়। চকভৃগু গ্রাম পঞ্চায়েতের পর্ষদপাড়া, চিঙিশপুরের ঘুঘুডাঙ্গা, অমৃতখন্ড গ্রাম পঞ্চায়েতের মালঞ্চা, বড়খইল সহ বিভিন্ন এলাকায় ঝড়ে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় একাধিক বাড়ি।

শিলাবৃষ্টির কারণে ক্ষতির সম্মুখীন বোরোধান চাষিরা। ধান পেকে যাওয়ায় অনেকেই তা কাটতে শুরু করেছে। এমতাবস্থায় শিলাবৃষ্টি হলে ফলন কমে যাবে। এর ফলে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে কৃষকদের। পুরো বিষয়ের উপর নজর দিচ্ছে জেলা প্রশাসন।

এবিষয়ে জেলাশাসক নিখিল নির্মল জানান, কোথায় কী কী ক্ষতি হয়েছে তা জানতে বিডিওদের কাছ থেকে রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে।