Breaking News

কেন্দ্রের ডিজিটাল স্ট্রাইক, একধাক্কায় নিষিদ্ধ TikTok, Helo-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপ

সংবাদ সারাদিন, ওয়েবডেস্ক: চিনের বিরুদ্ধে মোদি সরকারের ডিজিটাল স্ট্রাইক! একধাক্কায় চিনের ৫৯টি অ্যাপ (App) ব্যবহার নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র। সোমবার রাতে এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে বৈদ্যুতিন, তথ্য ও প্রযুক্তি  মন্ত্রক (Ministry of Electronics and Information and Technology) ।

নির্দেশিকায় Helo, UC Browser, Shareit-এর মতো একাধিক অ্যাপকে নিষিদ্ধ করার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। কেন্দ্রের অভিযোগ, এই ৫৯টি অ্যাপ ভারতের ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরি করছে।

এমনকি, ভারতের সার্বভৌমত্ব, সৌভ্রাতৃত্বকেও চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলছে। ভারতের প্রতিরক্ষা, নিরাপত্তাকেও নষ্ট করার চেষ্টা করছে এই অ্যাপগুলি। তাই এই ৫৯টি অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞা চাপাল কেন্দ্র সরকার। চিনের সঙ্গে বাড়তে থাকা উত্তেজনার মধ্যে এই পদক্ষেপ নিসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

তাদের কথা, এটা কেন্দ্রের ডিজিটাল স্ট্রাইক। এই নির্দেশিকার জেরে চিনের অর্থনীতি ব্যপক ধাক্কা খাবে। এক কথায়, বেজিংকে ভাতে মারতে প্রস্তুত কেন্দ্র সরকার। 

কেন্দ্রের তরফে জারি করা নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, “যা তথ্য মিলিছে তাতে দেখা যাচ্ছে  এই ৫৯টি অ্যাপ ভারতের সার্বভৌমিকতা, একাত্ববোধ, নিরাপত্তা ও আমজনতার নিরাপত্তা বিঘ্নিত করছে।” তাঁরা আরও জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরেই এই অ্যাপগুলির বিরুদ্ধে সাইবার বিশেষজ্ঞ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে নানা অভিযোগ করা হচ্ছি। 

তাদের থেকে প্রাপ্ত সেই তথ্যের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। তবে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের পিছনে অন্য কারণ দেখছে ওয়াকিবহাল মহল।

গত দুমাস ধরেই পূর্ব লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনার পারদ চড়ছে। তা চূড়ান্ত আকার নেয় গত ১৫ জুন। গালওয়ান সীমান্তে চিনা সেনার অতর্কিত হানায় শহিদ হন ২০ ভারতীয় জওয়ান। এরপর থেকেই চিনা পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন অনেকে।

পাশাপাশি চিনকে ভাতে মারার চেষ্টা করছে কেন্দ্র সরকার। ইতিমধ্যে চিনের বিভিন্ন সংস্থার একাধিক বরাত বাতিল করেছে রেল ও বিএসএনএল।

এরপরই ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র সরকার। যা চিনকে কার্যত বিপুল আর্থিক ক্ষতির মুখে ফেলবে। তবে এই অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ হওয়ার ফলে ভারতেও চাকরি হারাবেন বহু যুবক-যুবতী। (তথ্য সৌজন্যে: প্রতিদিন)