Breaking News

সরকারি লিস্টে নেই নাম, প্রতিবাদে গোপালবাটি গ্রাম পঞ্চায়েতে তালা মেরে বিক্ষোভ পরিয়ায়ী শ্রমিকদের

সংবাদ সারাদিন, বালুরঘাট: সরকারিভাবে নামের লিস্ট তৈরি করা হচ্ছে ভিন রাজ্য থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের। কিন্তু আসলেই যারা পরিযায়ী শ্রমিক, তাদের নাম নেই লিস্টে।

বরং তাদের নাম রয়েছে যারা বাইরে কাজ করতেই যাননি। এদিকে বিষয়টি নজরে আসতে ক্ষোভে ফেটে পড়েন পরিযায়ী শ্রমিকরা। ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার দুপুরে বালুরঘাট গোপালবাটি গ্রাম পঞ্চায়েতে তালা মেরে বিক্ষোভ দেখান তারা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পতিরাম ফাঁড়ির পুলিশ। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে ও পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি।

জানা গিয়েছে, ভিন রাজ্য থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের সরকারিভাবে লিস্ট করা হচ্ছে। প্রতিটি ব্লকেই এই লিস্ট তৈরি হচ্ছে। বালুরঘাট ব্লকের পক্ষ থেকেও এই লিস্ট তৈরি করা হয়েছে।

অভিযোগ, ওই লিস্টে পরিযায়ী শ্রমিকের বদলে সাধারণ মানুষের নাম রয়েছে। আর তারই প্রতিবাদে বালুরঘাট ব্লকের গোপালবাটি গ্রামপঞ্চায়েতে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখান উত্তেজিত পরীযায়ী শ্রমিকরা। প্রায় ৩০ জন পরীযায়ী শ্রমিক বিক্ষোভ দেখাতে থাকে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পতিরাম ফাঁড়ি পুলিশ। ঘণ্টাখানেক পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

এবিষয়ে গোপালবাটি গ্রামপঞ্চায়েতের বড়কইল এলাকার এক পরিযায়ী শ্রমিক রানা সরকার বলেন, “আমাদের এই গ্রামপঞ্চায়েতে পরিযায়ী শ্রমিকদের একটি লিস্ট পেয়েছি। সেখানে আমাদের কোন পরিযায়ী শ্রমিকদের নাম নেই। যারা কোনওদিন বাইরেই যায়নি, তাদের নামই সেখানে লেখা আছে। ইচ্ছে করেই এই ধরনের কাজ করা হয়েছে। ব্লক থেকে যারা সার্ভে করেছে তারা কিসের ভিত্তিতে সার্ভে করেছে। গরীব পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে যে এই ধরনের অন্যায় করা হয়েছে, তার জবাব চাই।”

এবিষয়ে গোপালবাটি গ্রামপঞ্চায়েতের বিজেপি উপ- প্রধান নিরোধ চন্দ্র বর্মণ বলেন, “আমরা কোনরকম পরিযায়ী শ্রমিকদের লিস্ট করিনি। কীসের ভিত্তিতে এই লিস্ট কোথা থেকে এল জানি না। তবে ব্লক থেকে ভিআরপি-রা গ্রামে গ্রামে ঘুরে লিস্ট করছেন। সেখানে পরিযায়ী শ্রমিকদের নাম নেই, অথচ সাধারণ মানুষ যারা বাইরে যায়নি তাদের নাম আছে। সেই লিস্ট নিয়েই হয়ত উত্তেজনা ছড়ায়।

আমরা বিডিও-এর সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইলেও আমাদের সঙ্গে কোনরকমভাবে সহযোগিতা করেনি। তাই আজ বাধ্য হয়ে এসডিওকে জানিয়েছি।”

এবিষয়ে বালুরঘাট সদর মহকুমাশাসক বিশ্বরঞ্জন মুখ্যোপাধ্যায় বলেন, “প্রচেষ্টা প্রকল্পের কোন লিস্ট নিয়ে হয়ত গোলমালের সৃষ্টি হয়েছে। আমি খবর পেয়েছিলাম একটি বিক্ষোভের কথা। পরে বিডিও-র কাছে শুনেছি বিক্ষোভ থেমে গিয়েছে। এই বিষয়ে আর বিস্তারিত কিছু জানি না।”