Breaking News

বহিরাগত তত্ত্ব ঝেড়ে ফেলতে বালুরঘাটে বাড়ি ভাড়া নিলেন বিজেপি প্রার্থী অশোক লাহিড়ী, করলেন সবজি ও মাছের বাজার

সংবাদ সারাদিন, বালুরঘাট: বহিরাগত তত্ত্ব ঝেড়ে ফেলতে বালুরঘাট শহরে আর্য্য সমিতির এলাকায় বাড়িভাড়া নিলেন বালুরঘাট বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অশোক লাহিড়ী। শুধুমাত্র বাড়ি ভাড়া নয় বুধবার সকাল হতেই হাতে ব্যাগ বা থলে নিয়ে বালুরঘাট তহবাজারে বাজার করতে আসেন তিনি। এদিন সকালে দলীয় কর্মীর মোটরবাইক করেই বাজারে আসেন অশোকবাবুর। এরপর সবজি ও মাছের বাজার করেন। তার প্রিয় খাবার মাছ। তাই এদিন তিনি কই ও মৌরালা বা স্থানীয় ভাষায় ময়া মাছ কেনেন তিনি। মাছের পাশাপাশি সবজির বাজার করেন। সব দিন আসতে না পারলেও এখন থেকে সময় পেলেই সবজির বাজার ও মাছের বাজার করবেন বলে বিজেপি প্রার্থী অশোক লাহিড়ী জানিয়েছেন।

এদিকে বিজেপি প্রার্থীর বাজার করা ও বাড়ি ভাড়া নিয়ে বহিরাগত তত্ত্ব ফের একবার সামনে এনেছে জেলা তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটর সুভাষ চাকি। বাড়ি ভাড়া নিলে আর বাজার করলে কেউ ভূমিপুত্র হয়ে যায় না। উনি আগেও বহিরাগত ছিলেন এবং এখনও বহিরাগত রয়েছেন। বালুরঘাট বিধানসভা নির্বাচনে প্রত্যেক বারই ভূমিপুত্র জয়ী হয়েছে, বহিরাগত নয়। আর যে কেউ বাড়ি ভাড়া নিতেই পারে আর বাড়ি ভাড়া নিলে থাকা-খাওয়ার জন্য বাজার করতে হয়। সে ক্ষেত্রে উনি যদি প্রমাণ করতে চান তিনি ভূমিপুত্র তাহলে সেটা ভুল হবে বলে তৃণমূলের জেলা কো-অর্ডিনেটর সুভাষ চাকি জানিয়েছেন।

অন্যদিকে বাজারের ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, কোন প্রার্থীই ভোট ঘোষণার পর এখনও সেভাবে বাজারে আসেননি। আজ প্রথমবার বাজারে এলেন বিজেপি প্রার্থী। বিজেপি প্রার্থী এই প্রথম বাজার করতে আসায় তাদের অনেকটাই ভালো লাগছে।

এবিষয়ে বিজেপি প্রার্থী অশোক লাহিড়ী বলেন, “বালুরঘাটে থাকব, আর মাছ খাব না। তা কখনও হয়? বালুরঘাটে বাড়ি ভাড়া নিয়েছি। তাই আজকে বাজার করতে এসেছি। মাছ আমার প্রিয়, তাই কই ও ময়া মাছ কিনে বাড়িতে নিয়ে গেছি। স্ত্রীর হাতে রান্না করা সেই খাওয়ার খেতেই প্রচারে বেরিয়েছি। অন্যদিকে, বহিরাগত তকমা নিয়ে তিনি বলেন, বহিরাগত আবার কি কথা? এটা আমার কাছে কোন নির্বাচনী কৌশল না। সুতরাং কে কি বলছে আমি গুরুত্ব দিচ্ছি না।”

তৃণমূলের জেলা কো-অর্ডিনেটর সুভাষ চাকি বলেন, “অশোক লাহিড়ী আগেই বলেছে তিনি জিতলেও এখানে থাকবেন না। ওনার ভিনরাজ্যেও বাড়ি রয়েছে। তাই বাড়ি ভাড়া নিয়ে আর বাজার করে নিজেকে স্থানীয় প্রমাণ করা যায় না। ভোটাররা ওনাকে বহিরাগত বলে আখ্যা দিয়েছে। তাই তিনি যতই স্থানীয় হওয়ার চেষ্টা করুক না কেন, তিনি এখানকার ভূমিপুত্র নয়।”