Breaking News

বালুরঘাটে চতুর্থবার বিয়ে করার সময় হাজির প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রী, আটক যুবক

সংবাদ সারাদিন, বালুরঘাট: একাধিকবার বিয়ের অভিযোগে এক যুবককে আটক করল পুলিশ। চতুর্থবার বিয়ে করার সময় হাজির প্রথম ও দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী। এরপরই পুলিশ অভিযুক্ত যুবককে আটক করে নিয়ে আসে থানায়। ধৃতের নাম অনন্যজ্যোতি চক্রবর্তী(৩২)। বাড়ি শহরের শিবতলি এলাকায়। মঙ্গলবার সন্ধায় বিয়ের কথা জানাজানি হয় বালুরঘাট খিদিরপুর এলাকায়। গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখছে বালুরঘাট থানার পুলিশ। অন্যদিকে বিয়ের খবর শুনে তপন থেকে যুবকের আর এক স্ত্রী বালুরঘাটে আসছেন বলে জানা গিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অনন্যজ্যোতি চক্রবর্তীর সঙ্গে সাহেবকাছারী এলাকার এক যুবতীর সঙ্গে ১২ বছর ধরে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। ওই যুবতীর মা বাবা নেই। অভিভাবক বলতে দাদা শুধু। গত কয়েক মাস থেকে একাধিকবার তারা শারীরিক সম্পর্কে আবদ্ধ হয়। গতকাল রাতে ফের শারীরিক সম্পর্ক করতে গেলে স্থানীয়রা তাকে আটকে ফেলে। অবস্থা বেগতিক বুঝে ওই যুবতীকে বিয়ে করবে বলে আশ্বাস দেয়।

এদিকে স্থানীয়রা রাতে ওই যুবক ও যুবতীকে আটকে রাখে। এদিন তাদের বিয়ে দিতে গেলে আগের পক্ষের দুই স্ত্রী ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। আগের দুই স্ত্রীর অভিযোগ, তাদের স্বামীর আরও অনেক কয়টা বিয়ে হয়েছে। এদিকে একাধিকবার বিয়ের ঘটনা সামনে আসতেই চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বালুরঘাট থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। পরে পুলিশ ওই যুবককে আটক করে নিয়ে আসে। পাশাপাশি যুবতীর নিরাপত্তার জন্য তাকেও থানায় নিয়ে আসা হয়। এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে তপন থেকে ওই যুবকের আর এক স্ত্রী বালুরঘাটে আসছেন বলে জানা গিয়েছে।

এবিষয়ে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, একাধিকবার বিয়ের মত ঘটনা যদি ঘটিয়ে থাকে ওই যুবক, তাহলে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। পাশাপাশি তাদের এলাকার যুবতীর স্থায়ী কোনও ব্যবস্থা করা যায় তার আর্জি জানিয়েছেন তারা।

যদিও একাধিকবার বিয়ের কথা অস্বীকার করেছে অভিযুক্ত অনন্যজ্যোতি চক্রবর্তী। এর আগে তার কোনও বিয়ে হয়নি বলে সাফ জানিয়েছে সে। সাহেবকাছারী পাড়ার মেয়েটিকেই বিয়ে করতে চায় সে।