Breaking News

তপনে বেআইনি ভাবে কাঁটা গাছের গুঁড়ি উদ্ধার করল বনদপ্তর

সংবাদ সারাদিন, তপন: ঠিক যেন কিছু খুঁড়তে কেউটের খোঁজ মেলার মত ঘটনা। রাস্তার পাশে সরকারি গাছ কাটার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উদ্ধার একাধিক অবৈধভাবে কাটা গাছের গুঁড়ি। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার তপন ব্লকের বালাপুর এলাকার ঘটনা। এদিকে খবর পেয়ে অবৈধভাবে রাখা গাছের গুড়িগুলি উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয় বালুরঘাট বনদফতরে। পাশাপাশি খতিয়ে দেখা হচ্ছে কাটা গাছের গুড়ির মালিককে এবং তার জন্য বৈধ কোন কাগজ রয়েছে কিনা।

তপন বালুরঘাট রাজ্য সড়কের পাশে থাকা একাধিক গাছ অবৈধভাবে কাঁটা হয়েছে। বিষয়টি এদিন জানাজানি হতেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় তপন ও বালুরঘাট বনদফতরের কর্মীরা। এদিকে গাছ কাঁটার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বনদপ্তর কর্মীদের চক্ষুচড়কগাছ অবস্থা হয়। ঘটনাস্থলে দেখা যায় রাস্তার দু’পাশে গাছ অল্পকিছু কাঁটা হয়েছে। তার থেকে বেশি অবৈধভাবে কাঁটাগাছ কেটে তা রাস্তার উপর রাখা হয়েছে। সেই গাছগুলি কার তা এখনও জানা যায়নি। গাছগুলি উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয় বালুরঘাট বনদপ্তরে। কেটে রাখা গাছগুলির মালিককে এবং কোথা থেকে কাঁটা হয়েছিল, গাছ কাঁটার জন্য কোন বৈধ অনুমতি রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে বনদপ্তর আধিকারিকরা জানিয়েছেন।

এবিষয়ে তপনের স্কুল শিক্ষক অলিন্দ্য চক্রবর্তী জানিয়েছেন, আজ স্কুলে যাওয়ার পথে দেখে বালাপুর এলাকায় বেশ কিছু গাছ কাটা রয়েছে এবং বেশ কিছু গাছের গুড়ি পড়ে রয়েছে। যেভাবে দিনদিন সবুজায়ন ধ্বংস করা হচ্ছে সেই জায়গা থেকে সরকারকে আরো অগ্রণী ভূমিকা পালন করা উচিৎ।

অন্যদিকে এবিষয়ে তপন বনদপ্তরের বিট অফিসার বরুণ দাস শর্মা জানান, রাস্তার ধারের গাছ কাঁটার কোন অনুমতি দেওয়া হয় না। বিষয়টি জানতে পেরেই ঘটনাস্থলে যান তাঁরা। দেখেন রাস্তার ধারে কিছু গাছ কাটা হয়েছে। পাশাপাশি রাস্তার পাশে কেউ বেআইনিভাবে গাছ কেটে গুঁড়িগুলো ফেলে রেখেছিল। কে বা কারা ফেলে গেছে তার খোঁজখবর তারা পাননি। তাই গাছের গুঁড়িগুলি উদ্ধার করে নিয়ে এসেছেন। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখছেন তারা।