ভরসন্ধ্যায় গলাকাটা অবস্থায় উদ্ধার যুবক, চাঞ্চল্য বালুরঘাটে

সংবাদ সারাদিন, বালুরঘাট: গলা কাঁটা অবস্থায় এক যুবককে রাস্তার পাশ থেকে উদ্ধার করে বালুরঘাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করল স্থানীয়রা। গুরুতর জখম ওই যুবকের নাম শঙ্কর বাস্কে(২৫)। বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ভাটপাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ভূষিলা এলাকায়৷

বুধবার সন্ধ্যায় বালুরঘাট ব্লকের অমৃতখন্ড গ্রাম পঞ্চায়েতের অয্যোধ্যা এলাকায় রাস্তার পাশে পরে থাকতে দেখে চকরাম থেকে অয্যোধ্যায় খেলতে যাওয়া ভূষিলা সংলগ্ন চকরামের কিছু যুবক। এরপরই তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয় চিকিৎসার জন্য বালুরঘাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। এনিয়ে বৃহস্পতিবার বালুরঘাট থানায় জখম যুবকের পরিবার খুনের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করেছে

এদিকে খবর পেয়ে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে আসে বালুরঘাট থানার পুলিশ। এদিকে কি ভাবে ওই যুবকের গলা কাঁটল? অয্যোধ্যা এলাকায় বা গেল কি করে? প্রশ্ন অনেক থাকলেও আপাতত এর কোন উত্তর নেই কারো কাছে৷ কারণ জখম ওই যুবক কথা বলতে পারছে না। কথা বলার চেষ্টা করলেই গলা দিয়ে গল গল করে রক্ত বেরচ্ছে।

গতকাল সন্ধ্যায় নিজের বাড়ি থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে অচৈতন্য অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে কিছু যুবক। তার গলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাত ও মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। বর্তমানে ওই যুবকের অস্ত্রোপচার চলছে বালুরঘাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে।

বর্তমানে ওই যুবক আতঙ্কজনক অবস্থায় রয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে খবর। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখছে বালুরঘাট থানার পুলিশ। যদিও পরিবারের দাবি সকালের পর থেকে আর বাড়ি ফেরেনি। সকালে কাজের জন্য বেরিয়েছিল।

এবিষয়ে আহত যুবকের দাদা নিখিল বাস্কে বলেন, “আমার ভাই বাড়ি থেকে কাজের জন্য বেরিয়েছিল। কিন্তু আর সারাদিন ফেরেনি। পরে শুনতে পাই এই ঘটনার কথা।কেউ হয়ত ভাইকে মেরে ওখানে ফেলে দিয়েছে। বালুরঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।”

অন্যদিকে, বালুরঘাট থানার পুলিস জানিয়েছে, খবর পেয়ে পুলিস ঘটনাস্থলে যায়। পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Spread the love