পুজোর আগেই খুলল শিলিগুড়ি বেঙ্গল সাফারি, এক্ষুনি দেখা মিলবে না রয়্যাল পরিবারের

সংবাদ সারাদিন, শিলিগুড়ি: পুজোর আগেই খুলল বেঙ্গল সাফারি, পর্যটকদের সুখবর শোনালো রাজ্যের নির্দেশিকা। সাফারি খুললেও এক্ষুনি দেখা মিলছে না রয়্যাল পরিবারের তার জন্য অপেক্ষা দু থেকে তিনদিনের। পুজোর আগেই পর্যটকদের জন্য সুখবর শোনালো রাজ্যের নির্দেশিকা। কোভিড ও পরবর্তীতে বন্যপ্রাণীদের নির্দিষ্ট প্রজননের সময়ের জন্য দীর্ঘ সময় ধরে বন্ধ ছিল সাফারি। টানা কয়েক মাস পর বুধবার থেকেই শিলিগুড়ি শালুগাড়ার বন্যপ্রাণ উদ্যান বেঙ্গল সাফারি।

মঙ্গলবার শিলিগুড়ি বেঙ্গল সাফারি দিরেক্টর বাদল দেবনাথ জানান, বুধবার থেকেই পর্যটক ও দর্শনার্থীদের জন্য খুলে যাচ্ছে পার্ক। কোভিড বিধি মেনেই সাফারির আনন্দ নিতে পারবেন দর্শকরা। সাফারির প্রবেশদ্বারে তাপমাত্রা ও মাস্ক এর ব্যবহার নিশ্চিত করেই পর্যটকদের প্রবেশ করানো হবে। নিয়মিত সাফারির আনন্দ উপভোগ করতে পারবেন দর্শনার্থীরা। তবে প্রথম কয়েকদিন রয়েল বেঙ্গল বাঘের পরিবারের সঙ্গে খোলা সাফারিতে সাক্ষাৎ হবে না পর্যটকদের। ডিরেক্টর বাদল দেবনাথ সম্প্রতি আগস্ট মাসের শেষের দিকে বহিরাগত বন্য হাতি হানা দেয় সাফারি পার্কের টাইগার এনক্লোজারে। সাফারি সীমানা ফেন্সিং ও ও টাইগার এনক্লোজারের ত্রি স্ট্রেন পাওয়ার ফেন্সিংয়ে বিশালাকায় গাছ ফেলে ভেঙে দেয় হাতি। ঢুকে পড়ে রয়াল পরিবারের এনক্লোজারে। এ ঘটনায় মোট ৭০ মিটারের মত টাইগার এনক্লোজারের ফেন্সিং ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তা মেরামতের কাজ শেষ হয়েছে। তবে দুই দফায় আরও চূড়ান্ত ফেন্সিং এর ক্ষমতা পরীক্ষা করা হবে। সুতরাং ফেন্সিং পর্যবেক্ষণের কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত বাঘেদের খোলা সাফারির উন্মুক্ত অরন্যে ছাড়া হবে না। দু-তিন দিনের মধ্যে এই পর্যবেক্ষণের কাজ শেষ করে চূড়ান্ত রিপোর্ট পেশ করব আমরা। এরপরই দর্শকদের সামনে ছাড়া হবে রয়াল পরিবারের সদস্যদের বলে জানান ডিরেক্টর।

পাশাপাশি তিনি এও জানান উন্মুক্ত সাফারিতে বাঘ ছাড়া না হলেও মন খারাপের কিছু নেই। পর্যটকদের জন্য টাইগার ক্রলের ভেতরে বাঘেদের খেলাধুলোর জন্য থাকা জায়গায় রাখা হবে তাদের। সুতরাং তাদের গতিবিধি সহজেই দেখতে ও ক্যামেরাবন্দি করতে পারবে সাফারির পর্যটকেরা।

Spread the love