রাতের অন্ধকারে খনন করে চলছে বালি পাথর তোলার কাজ, অভিযান চালিয়ে ভারী মেসিন সহ গ্রেফতার ১

সংবাদ সারাদিন, মালবাজার: পুলিশ অভিযান এর পরেও বন্ধ হচ্ছেনা মালবাজারের ঘীস নদীতে বেআইনি খনন কাজ। সংবাদ মাধ্যমে ধারাবাহিক খবরের জেরে ফের রাতে ঘীস নদীতে অভিযান। রাতের অন্ধকারে নদীর বুকে থাকা পারহর ভাঙা মিলে কাজ, চলছিল নদীতে খনন। অভিযান চালিয়ে মালবাজার থানার পুলিশ আটক করল মেশিন। ঘটনায় গ্রেফতার এক। 

রাতের আঁধারে নদীর বুকে পোকলেন মেসিন দিয়ে চলছিলো নদী খনন করে বালি পাথর তোলার কাজ। খবর পেয়ে অভিযান চালিয়ে ভারি মেসিন সহ এক ব্যাক্তিকে গ্রেপ্তার করল মাল থানার পুলিশ। ঘটনা ঘটেছে ওদলাবাড়ি এলাকার ঘিস নদীর চরে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতের অন্ধকারে ঘিস নদীতে মেশিনের সাহায্যে অবৈধ খননের কাজ চলছিল। খবর পেয়ে অভিযান চালালো মাল থানার পুলিশ। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে,  মঙ্গলবার রাত ১১টার পর মালের এসডিপিও  রবীন থাপা এবং আই সি সুজিত লামার নেতৃত্বে পুলিশের একটি বিশাল বাহিনী ঘিস নদী সংলগ্ন এলাকা থেকে একটি মাটি কাটার যন্ত্র(পোকলেন),দুটি ডাম্পার এবং এক ব্যাক্তিকে গ্রেপ্তার করে।

আই সি সুজিত লামা বলেন,আমাদের কাছে খবর ছিলো রাতের অন্ধকারে প্রায় দিনই ঘিস নদীর বুকে অবৈধ খননের কারবার চলে।সেই মতো মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালানো হয়।গ্রেপ্তার হওয়া ব্যাক্তিকে এদিন জলপাইগুড়ি আদালতে পেশ করা হয়েছে। ধৃতকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ওদলাবাড়ির ঘিস নদী খাদান মাফিয়াদের এক কেন্দ্র। কয়েক বছর আগে চর দখল নিয়ে একজন খুন হয়। কয়েকদিন আগে পুলিশ আক্রান্ত হয়। বার বার হুসিয়ারি করা ও অভিযান চালানো সত্বেও বালিপাথর তোলা থামেনি। রাতের আঁধারেও বে-আইনি ভাবে চলছে কাজ। 

Spread the love